Baliadangi-Barta

রাজনৈতিক উঠানে নিজ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এমপি দবিরুল ইসলাম

মোঃ মিন্নাত আলী, ঠাকুরগাঁও-২ (বালিয়াডাঙ্গী-হরিপুর) প্রতিনিধি: বৃহত্তর উত্তরাঞ্চলের বর্ষীয়ান ও কিংবদন্তি রাজনীতিবিদ, প্রবীণ পার্লামেন্টারীয়ান, লাকী সেভেন সাংসদ খ্যাত ৭১-রনাঙ্গের বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ দবিরুল ইসলাম এমপি আজ বিকাল ৪ টায় আয়োজিত আওয়ামীগের এক কর্মী সভায় নিজ রাজনৈতিক জীবনের অভিজ্ঞতা নিয়ে আলোচনা করেছেন। তিনি বলেন আমি ৪ বার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ৭ বার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। আমার এই দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অভিজ্ঞতা যে অর্জন করেছি তার কৃতিত্ব আপনাদের।

 

বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ দবিরুল ইসলাম এমপি ২৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৪৮ সালে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়বাড়ি ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বড়বাড়ি গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তিনি শহীদ পিতা আকবর আলীর জৈষ্ঠ পুত্র। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাক হানাদার বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে খুন হন শহীদ আকবর আলী । তাঁর মরদেহটিও খুঁজে পাওয়া যায়নি। অজোপাড়ার সেই এতিম ছেলেটি এক বুক কষ্ট নিয়ে ৭১রের মুক্তিযুদ্ধে অস্ত্র তুলে নেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে। মুক্তিযুদ্ধ থেকে দেশস্বাধীন পরে দেশ চালানোর দায়িত্ব নেন এই কিংবদন্তি জননেতা দবিরুল ইসলাম।

 

তিনি বলেন এক একটি ভোটে দলের পরিবর্তন ঘটাতে পারে, তাই প্রতিটি ভোট ও ভোটারের গুরুত্ব অপরিসীম। তিনি আরো বলেন শুধু মিটিং আলোচনা নয় নির্বাচন -কে উৎসবমুখর করতে আওয়ামী নেতা কর্মীদের সজাগ থেকে মাঠ পর্যায়ে কাজ করতে হবে।

 

এসময় তিনি বিদ্রোহী প্রার্থীদের সারা দেশের ন্যায় বিদ্রোহ প্রত্যাহার করে আওয়ামী লীগের হয়ে কাজ করার আহবান জানান। তিনি বলেন নৌকার বিদ্রোহ করলে যার যেখানে অবস্থান ছিল সেই অবস্থানে ফিরে যাবেন।

Exit mobile version